ই-ক্যাবের এফ-কমার্স এ্যালায়েন্স কমিটি গঠিত

ই-ক্যাব (ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ) ফেসবুক ভিত্তিক উদ্যোক্তাদের নিয়ে ই-কমার্স ও ই-ক্যাবের অধীনস্থ উপকমিটি হিসেবে এফ-কমার্স এলায়েন্সের কার্যকরি কমিটি গঠন করেছে।

শনিবার (৫ জুন) এই কমিটি ঘোষণা করা হয়। সাজ্জাদ বিন আহসান সৌরভ চেয়ারম্যান, রিদওয়ানুল বারী জিয়ন ভাইস চেয়ারম্যান ও মুসলিম উদ্দীন বাপ্পিকে সাংগঠনিক সম্পাদক করে ৯ সদস্যের এই কমিটি ঘোষণা করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন ই-ক্যাবের ভাইস প্রেসিডেন্ট সাহাব উদ্দিন শিপন, জেনারেল সেক্রেটারি মোহাম্মদ আব্দুল ওয়াহেদ তমাল এবং জেনারেল ম্যানেজার জাহাঙ্গীর আলম শোভনসহ কমিটির সদস্যরা।

কমিটির অন্যান্য নির্বাহী সদস্যরা হলেন : পার্থ প্রতিম, মোস্তাফিজুর রহমান খান, হুরাইরা শিশির, মেসবাহ উদ্দিন, মাশহারুল হুদা আনান ও হোসনে আরা খান নওরীন।

সাহাব উদ্দিন শিপন বলেন, ‘ই-কমার্সের সঙ্গে তাল মিলিয়ে ক্রমশ বড় হচ্ছে এফ-কমার্স তথা সোস্যাল মিডিয়া ভিত্তিক ব্যবসায়িক উদ্যোগ। এই মুহুর্তে তাদের সংখ্যা ও ব্যবসা সম্পর্কে যেমন তথ্য থাকা দরকার। তেমনি প্রয়োজন তাদের জন্য সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করা। ’

মোহাম্মদ আব্দুল ওয়াহেদ তমাল বলেন, সোস্যাল মিডিয়া সেক্টরের উদ্যোক্তাদের স্বীকৃতি, নিবন্ধন ও ট্রেড লাইসেন্সের বিকল্প ব্যবস্থা কিংবা সহজিকরণের মাধ্যমে তাদের মূল ব্যবসায়িক স্রোতে একীভূত করা দরকার। একইভাবে দেশের অর্থনীতিতে এফ-কমার্স উদ্যোক্তাদের অবদানকে স্বীকৃতির মধ্যে আনতে তাদেরকে একটা ছাতার নিচে জড়ো করার প্রয়োজন রয়েছে বলে মনে করছি। সে লক্ষ্যে এই কমিটি গঠন করা হয়েছে।’

জাহাঙ্গীর আলম শোভন বলেন, ‘এফ কমার্সের সহজ নিবন্ধনের একটা প্রস্তাবনা ইতোমধ্যে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে বিবেচনাধীন রয়েছে। এ্যালায়েন্সের অধীনে এফ-কমার্স উদ্যোক্তাদের ই-ক্যাবের সঙ্গে যুক্ত করার প্রক্রিয়া শুরু হলো। এফ-কমার্স নিয়ে খুব শীঘ্রই একটি সেমিনার আয়োজন করা হবে যা বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের বিজনেস প্রমোশন কাউন্সিলের সঙ্গে যৌথ ব্যবস্থাপনায় অনলাইনে অনুষ্ঠিত হবে। তাতে এ বিষয়ে ভবিষ্যৎ করণীয় সম্পর্কে আলোচনা করা হবে। ’

ই-ক্যাবের ১৬টি স্ট্যান্ডিং কমিটিসহ মোট ৩০টি উপকমিটি রয়েছে। কমিটিগুলো ই-ক্যাবের অধীনে থেকে স্ব স্ব ক্ষেত্রে কাজ করে থাকে। এফ-কমার্স এলায়েন্স একটি উপকমিটি হলেও এর ব্যাপক ব্যপ্তির সম্ভাবনা রয়েছে।

ই-ক্যাব বাংলাদেশের ই-কমার্স উদ্যোক্তাদের একমাত্র অনুমোদিত সংগঠন যা বিগত ২০১৪ সাল থেকে ই-কমার্সের উন্নয়নে কাজ করছে। সংগঠনটি ট্রেড এসোসিয়েশন হিসেবে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অধিভূক্ত এবং এফবিসিসিআইয়ের সঙ্গে সম্পৃক্ত। বিগত বছর করোনাকালীণ সময়ে দেশের অর্থনীতিতে বিশেষ অবদানের জন্য ই-ক্যাব সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ পুরষ্কার অর্জন করে।

Avatar
বাংলাদেশে ই-কমার্স সেক্টরের বিকাশের পাশাপাশি এর সাথে জড়িত সকল ক্রেতা ও বিক্রেতাদের জন্য আলাদা একটি নিউজ মিডিয়া সময়ের চাহিদা হয়ে দাঁড়িয়েছে। তাই ই-কমার্স সংক্রান্ত দেশ বিদেশের সকল সংবাদ আপনাদের কাছে পৌঁছে দেয়ার লক্ষ্য নিয়েই কাজ করে যাচ্ছে ইকমভয়েজ ডট কম।

মন্তব্য পোস্ট করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here