Homeআন্তর্জাতিকজুলাই মাসে ক্রিসমাস: ওয়ালমার্ট ও আমাজনের মূল্য ছাড়ের প্রতিযোগিতা

জুলাই মাসে ক্রিসমাস: ওয়ালমার্ট ও আমাজনের মূল্য ছাড়ের প্রতিযোগিতা

বিশ্বের দুই প্রধান খুচরা বিক্রেতা জুলাই মাসে তাদের পণ্যের মূল্য ছাড়ের প্রতিযোগিতায় লিপ্ত হয়েছিল। আমাজনের ২০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর দিনে ওয়ালমার্টের লেনদেনে ধস নামে। ওইদিন  বিক্রয়ের ক্ষেত্রে আমাজনের পূর্বের রেকর্ড ভঙ্গ হয়। ২০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে কাকতালীয়ভাবে এ ঘটনা ঘটে। ওইদিন বড় বড় গ্রাহকদের জন্য আমাজনের নতুন নতুন সুযোগসুবিধাগুলো তাদের সাইটে প্রতি দশ মিনিট পর পর প্রদর্শন করা হয়। আমাজন কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, প্রায় ডজন খানেক বিভিন্ন ক্যাটাগরির পণ্য প্রদর্শন করা হয়েছে। কিন্তু বিশ্বের বৃহত্তম এই খুচরা বিক্রেতা এখন চাইছেন, অনলাইন বিক্রয়ের জন্য তাদের সার্বক্ষণিক ডিজিটাল উপস্থিতি আরও জোরদার করতে।

পরের দিন বৃহস্পতিবার ওয়ালমার্ট এর মূল্যছাড় চালু হয়। ওইদিন তারা হাজার হাজার পণ্যে বিশেষ সুবিধা দেয় এবং কিছু পণ্যে বিশেষ ছাড় দেয়। ওইদিন তারা ৩৫ ডলার থেকে ৫০ ডলারের পণ্য গ্রাহকদের বিনামূল্যে পৌঁছে দেয়। যার খরচ আমাজানের মতোই একই হারে।

ইউএসএ টুডের মতে, ওয়ালমার্টের বিক্রয় ৯০ দিনের জন্য স্থায়ী হবে। যা আমাজনের একদিনের ঘটনার থেকে ভিন্ন। ওয়ালমার্ট ডট কম প্রধান ফার্নান্দো মাদিরা কোম্পানির ব্লগে লিখেছেন, আমরা শুনেছি কিছু খুচরা বিক্রেতা ১০০ ডলার পর্যন্ত অতিরিক্ত চার্জ নিচ্ছে। আসলে ব্যাপার হচ্ছে বিশেষ দিনের সুযোগ সুবিধা শুধু বিশেষ গ্রাহকরাই পাবে, যারা বার্ষিক ৯৯ ডলার সাবস্ক্রিপশন ফি দেয়। তবে অর্থ সঞ্চয় করার জন্য গ্রাহকদের অতিরিক্ত টাকা নেয়ার বিষয়টি আমাদের জন্যই যোগ করতে পারেনি।

তবে বিশ্বের বৃহত্তম এই দুই খুচরা বিক্রেতার মূল্যে ছাড়ের প্রতিযোগিতায় মূলত: ভোক্তারাই অভাবনীয় লাভ করছে। বিস্ময়ের ব্যাপার যে, এতে অন্যান্য ব্যবসায়ীরা তাদের ব্যবসার ঝাপ বন্ধ করে দিচ্ছে। ফলে এনিয়ে সপ্তাহব্যাপী চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে এবং যদিও ক্রিসমাসের জন্য জুলাই বিক্রয় নতুন কোন ধারণা নয়। খুচরা বিক্রেতারা তাদের লক্ষ্যপূরণে এবং সবচেয়ে ভালো বিক্রয়ের জন্য সারা বছর ধরে অপেক্ষা করে। আমাজন ও ওয়ালমার্ট এই প্রতিযোগিতায় নামতে বাধ্য হয়। এ কারণে ব্ল্যাক ফ্রাইডে এবং সাইবার মানডের অস্তিত্ব এখনও অস্বীকার করা যায় না।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -spot_img

Most Popular