Homeওয়েব ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্টস্টোরিয়ার প্ল্যাটফর্মে নিজের ডোমেইনে নিজের অনলাইন স্টোর

স্টোরিয়ার প্ল্যাটফর্মে নিজের ডোমেইনে নিজের অনলাইন স্টোর

অনলাইনে বেচাকেনার এই সুবর্ণ সময়ে অনেক তরুণ উদ্যোক্তাই ঝুঁকছেন আজকে ইকমার্স ব্যবসার দিকে। তারুণ্যের সম্পদ; উদ্যম আর স্পৃহাকে পুঁজি করে অনেক তরুণ উদ্যোক্তাই বানিয়ে নিচ্ছেন নিজের অনলাইন স্টোর। স্টোরিয়া এসেছে এই তরুণ উদ্যোক্তাদের জন্য সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিতে। অনলাইন স্টোর তৈরী করা যাদের কাছে অনলাইনে ব্যবসা করার বিরাট প্রতিবন্ধকতা, তাদের আছে স্টোরিয়া প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে সহজে ব্যবসা করার সুযোগ।

অনলাইন ইকমার্স সাইটের প্রয়োজনীয়তা অনেক উদ্যোক্তাই সহজে অনুভব করেন না। তাদের কাছে এটি একটি বাড়তি খরচ কিংবা ঝামেলা মনে হয়। ফেইসবুকে যারা অনলাইন স্টোর চালান তাদের মধ্যে এই প্রবণতা বেশী। যদি ফেইসবুকে স্টোর চালিয়েই ব্যবসা করা যেত তবে অ্যাডিডাস, নাইকি কিংবা আরমানির মত বিশ্ববিখ্যাত ব্র্যান্ড কখনোই নিজের অনলাইন সাইটে পণ্য বিক্রি করতেন না। তাদের ফেইসবুক পেইজ চালিয়েই তারা ব্যবসা করতে পারতেন। এই ব্যাপারটা আমাদের উদ্যোক্তাদের বোঝার দরকার আছে। একটা অনলাইন স্টোর উদ্যোক্তাকে দেয় স্বাধীন ব্যবসার স্বাদ, কাস্টমারকে দেয় আপনার পণ্যের ব্র্যান্ড ভ্যালু সম্পর্কে একটি পজিটিভ ধারণা। ফেইসবুক আপনার পণ্যের প্রমোশনের জায়গা হিসেবে কাজ করতে পারে। কিন্তু পণ্য বেচাকেনার জন্যে ফেইসবুকের উপর নির্ভর করা আসলে বুদ্ধিমানের কাজ হবেনা। কারণ এই সাইটটি আপনার ইচ্ছানুযায়ী পরিচালিত হয় না। আপনার কোন প্রয়োজন মেটাতে তারা বাধ্য নন।

স্টোরিয়াতে আপনি স্টোর খুললেই প্রথমে পাবেন একটি সাবডোমেইন। ধরুন আপনার দোকানের নাম xyz, স্টোরিয়াতে স্টোর খোলার পরে আপনার স্টোরের নাম হবে xyz.storrea.com।

যদি ফেইসবুকে স্টোর চালিয়েই ব্যবসা করা যেত তবে অ্যাডিডাস, নাইকি কিংবা আরমানির মত বিশ্ববিখ্যাত ব্র্যান্ড কখনোই নিজের অনলাইন সাইটে পণ্য বিক্রি করতেন না। তাদের ফেইসবুক পেইজ চালিয়েই তারা ব্যবসা করতে পারতেন।

আর সেই স্টোরের কন্টেন্ট, প্রোডাক্ট আপলোড, অর্ডার ম্যানেজমেন্ট, পেমেন্ট সবকিছু নিয়ন্ত্রণ করার জন্যে একটি আডমিন প্যানেল তো আছেই। যার ফলে আপনি ডেভেলাপারের কাছে দৌড়োনোর ঝামেলা থেকে মুক্তি পেয়ে যাবেন। নিজের সাইট নিজে নিয়ন্ত্রণ করার এই সুবিধাই স্টোরিয়ার মূল আকর্ষণ।

আরও পড়ুনঃ অনলাইনে বেচাকেনার সহজ প্লাটফর্ম নিয়ে Storrea.com

কিন্তু অনেক উদ্যোক্তাই আছেন যারা আসলে আরো এক ধাপ এগিয়ে নিজেদের ডোমেইনেই একটা সাইট চান যেটা কিনা এভাবে একটি অ্যাডমিন প্যানেল থেকে নিয়ন্ত্রণ করা যাবে। ধরুন তার দোকানের নাম xyz, তিনি চান তার দোকানের ওয়েবসাইট লিংক হবে www.xyz.com। এই সুবিধাও দিচ্ছে স্টোরিয়া। আপনি নিজের ডোমেইন কিনে দিতে পারেন অথবা টিম স্টোরিয়ার সাথে যোগাযোগ করতে পারেন আপনার ডোমেইন নেইম কেনার জন্যে। হোস্টিং এর ঝামেলা নেই, যেহেতু ওয়েব হোস্টিং স্টোরিয়ার সার্ভারেই হচ্ছে। আর আপনি নিজের সাইট এর জন্যে পেতে পারেন স্টোরিয়ার অ্যাডমিন প্যানেলের সব ফিচার এবং সুবিধাগুলো।

বাংলাদেশের অনলাইন ইকমার্স অগ্রযাত্রায় স্টোরিয়া ইকমার্স উদ্যোক্তাদের পাশে বন্ধুর মত দাঁড়াতে চায়। অনলাইন ব্যবসার হুজুগে না মেতে বরং ব্যবসাটাকে সবাই একটু জেনে বুঝে করলেই কিন্তু তরুণ উদ্যোক্তাদের জন্যে ব্যবসায়িক ঝুঁকির পরিমাণ কমে যায়। আর তাই স্টোরিয়া ইকমার্স উদ্যোক্তাদের জন্যে সম্ভাব্য সকল সমাধানই নিয়ে আসছে। এই প্ল্যাটফর্মেই আন্তর্জাতিক মানের ইকমার্স সুবিধাগুলো আপনি পাবেন। ব্যবসা আপনার। প্রযুক্তি স্টোরিয়ার।

আজই ভিজিট করুনঃ [www.storrea.com]

RELATED ARTICLES
- Advertisment -spot_img

Most Popular